বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২

আচমকা ওয়ানডে থেকে অবসরের ঘোষণা স্টোকসের

স্পোর্টস ডেস্ক

১৮ জুলাই ২০২২, ০৯:২৯ অপরাহ্ন

আচমকা ওয়ানডে থেকে অবসরের ঘোষণা স্টোকসের

বিশ্বকাপ জয়ের নায়ক এবার বিদায় বলছেন। বেন স্টোকস মঙ্গলবার খেলবেন ক্যারিয়ারের শেষ ওয়ানডে ম্যাচ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে রয়্যাল লন্ডনের ম্যাচটি খেলেই ওয়ানডে ক্রিকেটকে বলবেন গুডবাই। সোমবার তেমনটাই জানালেন, ৩১ বছর বয়সী এই ইংলিশ অলরাউন্ডার।

১০৪ ওয়ানডে খেলা স্টোকস তার হোম গ্রাউন্ড ইউনিক রিভারসাইডে ওয়ানডে আন্তর্জাতিক ক্যারিয়ার শেষ করতে প্রস্তুত। বিদায়ের ঘোষণা দিতে এসে যেমনটা বলছিলেন ইংল্যান্ডের এই মহাতারকা, ‘সিদ্ধান্ত নেওয়া কঠিন ছিল আমার জন্য। তবে এই ফরম্যাটে যখন আমি শত ভাগ দিতে পারব না তখন এই বিষয়টি নিয়ে কাজ করা ততটা কঠিন নয়।’

বেন স্টোকস বিদায় বললেও এই ফরম্যাটে তাকে মনে রাখতে হবে। লর্ডসে ২০১৯ সালের ক্রিকেট বিশ্বকাপের ফাইনালে অসাধারণ ক্রিকেট খেলে হয়েছিলেন জয়ের নায়ক। স্টোকসের অপরাজিত ৮৪ রান ম্যাচটিকে সুপার ওভারে নিয়ে যায়। এরপর ইংল্যান্ড রোমাঞ্চকর ঘটনার জন্ম দিয়ে তাদের প্রথম আইসিসি বিশ্বকাপ ট্রফি জিতে নেয়!

আরও পড়ুন>>টেস্টে ছক্কার ‘সেঞ্চুরি’ স্টোকসের

২০১১ সালে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে তার ওয়ানডে অভিষেক। এরপর স্টোকস তিনটি সেঞ্চুরি সহ ২৯১৯ রান করেছেন। বল হাতে নিয়েছেন ৭৪ উইকেট। এইতো গত গ্রীষ্মে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩-০ ব্যবধানে সিরিজ জয়ে দলকে নেতৃত্বও দিয়েছেন স্টোকস।

সেই বেন স্টোকস জানিয়ে দিলেন, ‘আমি মঙ্গলবার ডারহামে ওয়ানডে ক্রিকেটে ইংল্যান্ডের হয়ে আমার শেষ ম্যাচটি খেলব। এই ফরম্যাট থেকে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি। এটি একটি অবিশ্বাস্যভাবে কঠিন সিদ্ধান্ত ছিল। আমি আমার সতীর্থদের সঙ্গে খেলার প্রতিটি মিনিট উপভোগ করেছি।’

মূলত তিন ফরম্যাটে খেলা চালিয়ে যাওয়াটা কঠিনই মনে করছেন স্টোকস। এ কারণেই ওয়ানডে থেকে সরিয়ে নিলেন নিজেকে। স্টোকস বলছিলেন, ‘আমি টেস্ট ক্রিকেটে আমার যা সামর্থ্য আছে সবই দেব। এই সিদ্ধান্তের পর আমি মনে করি আমি টি-টোয়েন্টি ফরম্যাটেও আমার আগের চেয়ে বেশি মনোযোগ দিতে পারবো।’

ইসিবির অন্তর্বর্তীকালীন প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা ক্লেয়ার কনর যা বলেছেন তার সঙ্গে একমত হবেন ক্রিকেটপ্রেমীরাও, ‘বেন স্টোকস আমাদের খেলার প্রতিটি ফরম্যাটেই একজন সুপারস্টার। ২০১৯9 সালে লর্ডসে আইসিসি পুরুষদের ক্রিকেট বিশ্বকাপ ফাইনালে তার অসাধারণ অবদান মনে থাকবে। বেন শুধুমাত্র বিশ্বের সেরা খেলোয়াড়দের একজন নয়, একজন অনুপ্রেরণাদায়ক ব্যক্তিত্বও তাই আমাদের ওয়ানডে দল তাকে মিস করবে।’ 


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন