বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২

চট্টগ্রাম বন্দরকে তৃতীয় হার ‘উপহার’ দিল কোয়ালিটি স্পোর্টস

ক্রীড়া প্রতিবেদক

২২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১২:৩৫ অপরাহ্ন

চট্টগ্রাম বন্দরকে তৃতীয় হার ‘উপহার’ দিল কোয়ালিটি স্পোর্টস

ম্যাচ সেরা কোয়ালিটির রোমানের হাতে পুরষ্কার তুলে দেন সিডিএফএ এর নির্বাহী সদস্য কাজী মোহাম্মদ জসিম উদ্দীন

চট্টগ্রাম জেলা ক্রীড়া সংস্থা ও চট্টগ্রাম জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের ব্যবস্থাপনায় এবং জিপিএইচ ইস্পাত লি. এর পৃষ্ঠপোষকতায় চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার ফুটবল লিগে নিজেদের চতুর্থ ম্যাচে তৃতীয় জয় পেয়েছে কোয়ালিটি স্পোর্টস ক্লাব।

চট্টগ্রাম এম আজিজ স্টেডিয়ামে বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) ১-০ গোলে চবক ক্রীড়া সমিতিকে পরাজিত করেছে। এবারের লিগে কোয়ালিটির এটা চার ম্যাচে তৃতীয় জয় হলেও সমান খেলায় চবক ক্রীড়া সমিতির তৃতীয় হার। এর আগে কোয়ালিটি প্রথম খেলায় বিসিআইসিকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে লিগে যাত্রা শুরু করে। তবে দ্বিতীয় ম্যাচে মোহামেডান ব্লুজের বিপরীতে ড্রয়ে দুই পয়েন্ট খোয়ালেও পরের দুই ম্যাচের একটিতে মুক্তিযোদ্ধাকে ২-১ গোলে এবং শেষ ম্যাচে গতকাল চবক ক্রীড়া সমিতিকে হারিয়ে জয়যাত্রা অব্যাহত রাখে।

অন্যদিকে অফিস দলের মধ্যে অন্যতম চবক ক্রীড়া সমিতি ২-১ গোলে মুক্তিযোদ্ধার বিপক্ষে হারলেও দ্বিতীয় ম্যাচে নবাগত শতদলের বিপক্ষে ২-১ গোলে জয়ে ফিরে আসে। তবে পরের ম্যাচে তা ধরে রাখতে পারেনি তারা যা অব্যাহত ছিল গতকাল চতুর্থ রাউন্ডের ম্যাচেও।

গতকাল লিগের চতুর্থ রাউন্ডের খেলায় চট্টগ্রাম বন্দর দলে কিছুটা পরিবর্তন এনে খেলতে নামে। কয়েকজন নতুন খেলোয়াড় অন্তর্ভুক্ত করে দল সাজায় তারা। এতে করে মাঠেও তার রেশ চোখে পড়ে। আগের খেলাগুলোর চাইতে এদিন বেশ ভালো খেলা উপহার দেয় তারা। খেলার প্রথমার্ধ ছিল গোলশূন্য। তবে কোয়ালিটির তুলনায় প্রথমার্ধে অনেক বেশি আক্রমন পরিচালনা করে বন্দর। তবে আক্রমন করলে কি হবে তাদের আক্রমনগুলো তেমন জোরালো হয়নি। বল নিয়ে বিপক্ষ সীমানায় উঠে গেলেও যথার্থ ফিনিশিংয়ের অভাবে গোল পাওয়া হয়নি তাদের। 

খেলার ১৯ মিনিটে বন্দর আক্রমনে উঠে। ডান দিকে একটা দারুন ক্রস পান আল আমিন। কিন্তু তিনি ঠিকমত মাথা ছোঁয়াতে পারেননি। ফলে গোল থেকে বঞ্চিত হয় বন্দর। ২২ মিনিটে কোয়ালিটির জীবন মিয়া শট নেন। তা বন্দর কিপারের হাতে চলে যায়। দু’মিনিট বাদেই বন্দরের দিদার ফাউল শট নেন। সেখান থেকে বঙে হেড এবং তা বার উঁচিয়ে চলে যায়। ৩৫ মিনিটে কোয়ালিটির দেলোয়ারের শটও লক্ষ্যভেদ করতে পারেনি। তা বারের উপর দিয়ে যায়। বন্দর অধিনায়ক জিকুর একটি শটও খেলার বারের বাইরে দিয়ে চলে যায়। 

গোলশূন্য অবস্থায় দ্বিতীয়ার্ধের খেলা শুরু করে দু’দল। এ অর্ধের ৫ম মিনিটেই দারুন একটা সুযোগ পেয়ে যায় বন্দর। আক্রমনে উঠে গোলে বল ঢুকিয়ে দিতে তিন দফা চেষ্টা করে বন্দর। কিন্তু প্রতিবারই কোয়ালিটি কিপার নাইম মিয়া গোল বঞ্চিত করে বন্দরে। ২৪ মিনিটে বন্দরের রয়েলের হেড চলে যায় বাইরে। ৩৩ মিনিটে এগিয়ে যায় কোয়ালিটি। পাল্টা আক্রমনে উঠে কোয়ালিটির মো. রোমান বঙের বাইরে থেকে বল নিয়ে ঢুকে যান। আর বঙের ভেতরে ঢুকেই তৎপরতার সাথে প্লেসিং শটে পরাভূত করেন বন্দর কিপার শিমুল কুমার দাসকে (১-০)। এ গোলের পর বন্দর কিছুটা চেষ্টা করে গোলশোধের। কিন্তু তা যথেষ্ট হয়নি। ফলে আগের চাইতে ভালো খেলেও পরাজয় নিয়ে মাঠ ছাড়তে হয় তাদের। 

গতকালের খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন কোয়ালিটি স্পোর্টস ক্লাবের রোমান। তার হাতে ক্রেস্ট ও নগদ এক হাজার টাকা প্রাইজমানি তুলে দেন সিডিএফএ এর নির্বাহী সদস্য কাজী মোহাম্মদ জসিম উদ্দীন।

আজকের খেলা
আজ বিকাল সাড়ে ৩ টায় মুখোমুখি হবে শতদল ক্লাব বনাম মাদারবাড়ী উদয়ন সংঘ।


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন