শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

তিন ম্যাচ পর আবারও জয়ের ধারায় চট্টগ্রাম ব্রাদার্স

চট্টগ্রাম প্রিমিয়ার ফুটবল

ক্রীড়া প্রতিবেদক

০৬ অক্টোবর ২০২২, ১০:৪৬ পূর্বাহ্ন

তিন ম্যাচ পর আবারও জয়ের ধারায় চট্টগ্রাম ব্রাদার্স

একটানা তিন ম্যাচ হেরে শিরোপা রেসে পথ হারানো চট্টগ্রাম ব্রাদার্স ইউনিয়ন আবারও জয়ে ফিরেছে। তাও শিরোপার আরেক দাবিদ্বার কোয়ালিটি স্পোর্টসকে ২-১ গোলে হারিয়ে। এ জয়ের ফলে ৮ ম্যাচ শেষে ব্রাদার্সের পয়েন্ট গিয়ে দাঁড়াল ১৫। সমানসংখ্যক ম্যাচ খেলে কোয়ালিটির খাতায় ১৪ পয়েন্ট। অন্যদিকে, মাদারবাড়ি উদয়ন সংঘ এক ম্যাচ কম খেলেই ১৫ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষে থেকে শিরোপার স্বাদ পাওয়ার অপেক্ষায়।

বুধবার (৫ অক্টোবর) চট্টগ্রাম এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে ৮ম রাউন্ডের খেলায় প্রথমে গোল করেও হার মেনে নেয় কোয়ালিটি স্পোর্টস ক্লাব। এ জয়টা ব্রাদার্সের জন্য ছিল গুরুত্বপূর্ণ। কারণ টানা তিন খেলা হেরে আবার জয়ের মুখ দেখে বর্তমান চ্যাম্পিয়ন ব্রাদার্স। 

উদয়ন তাদের বাকি দুই খেলায় অপেক্ষাকৃত দুর্বল দল দুটির বিরুদ্ধে জিতবে এমন ধরে নিলে রানার্স আপের জন্য লড়াইয়ে থাকবে ব্রাদার্স এবং কোয়ালিটি। তাদের আরেকটি করে খেলা বাকি আছে। ব্রাদার্স খেলবে সিটি কর্পোরেশন একাদশের সাথে এবং কোয়ালিটি খেলবে কাস্টমস স্পোর্টস ক্লাবের বিপক্ষে। তাদের কাছাকাছি থাকা অপর দুই দল সিটি কর্পোরেশন এবং শতদল ৭ খেলা শেষে ১২ পয়েন্ট করে পেয়েছে। এ দল দুটো আরো দুটি করে খেলায় অংশ নেবে।

গতকালের খেলায় শুরু থেকে আধিপত্য দেখায় কোয়ালিটি স্পোর্টস ক্লাব। খেলার ২৬ মিনিটে এগিয়ে যায় কোয়ালিটি স্পোর্টস ক্লাব। বাম দিক থেকে বল পেয়ে শাকিল এগিয়ে যান। বক্সে ঢুকেই শাকিল কিপার করিমের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়ান (১-০)। তবে এক গোলে পিছিয়ে থাকা ব্রাদার্স খেলার ৩৬ মিনিটে চমৎকার একটা সুযোগ লাভ করলেও মিস করেন তারা। তাদের হয়ে খেলতে আসা জাতীয় তারকা সাজ্জাদ ওপেন নেট মিস করেন। কোয়ালিটি কিপার নাইম মিয়া ছিলেন তার সামনে। হেড নেন তিনি। কিন্তু তার হেডের বল লক্ষ্যভেদ করতে পারেনি। নিশ্চিত গোল থেকে বঞ্চিত হয় ব্রাদার্স ইউনিয়ন। 

দ্বিতীয়ার্ধে বেশ জমে উঠে খেলা। ব্রাদার্স খেলায় ফিরে আসার জন্য সবাই উপরে উঠে খেলতে থাকে। মরিয়া হয়ে চেষ্টা করতে থাকে তারা। ম্যাচের ৬৪ মিনিটে গোল শোধ করার উপলক্ষ এসে যায় ব্রাদার্সের কাছে। শফিক সেন্টার করেন কোয়ালিটির বক্সে। সেখানে বল কোয়ালিটি ডিফেন্ডার শামীম শেখের হাতে লেগে যায়। রেফারী জি এম চৌধুরী নয়ন পেনাল্টির বাঁশি বাজান ব্রাদার্সের পক্ষে। তাদের জাতীয় তারকা সাজ্জাদ পেনাল্টিতে গোল করলে ব্রাদার্স সমতায় ফেরে (১-১)। 

এরপর কোয়ালিটিও কয়েকবার আক্রমণে উঠে। কিন্তু তাদের সে আক্রমণ থামিয়ে দেয় ব্রাদার্সের রক্ষণভাগ। পাল্টা আক্রমণে অল আউট খেলতে থাকা ব্রাদার্সের আরাফাত থ্রু বাড়ান বক্সে থাকা নয়নের কাছে। সেখান থেকে বল ক্লিয়ার করতে যান কোয়ালিটির ডিফেন্ডার রুনি হায়দার। কিন্তু বলটি তার মাথা ছুঁইয়ে জালে ঢুকলে আত্মঘাতী গোল হয়ে যায়। পিছিয়ে পড়ে কোয়ালিটি। টানা তিন ম্যাচ হারের পর শেষ পর্যন্ত সৌভাগ্যপ্রসূত ২-১ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ব্রাদার্স ইউনিয়ন।

গতকালের খেলায় ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হন বিজয়ী দলের খেলোয়াড় সাহেদ। তার হাতে ক্রেস্ট ও নগদ এক হাজার টাকার প্রাইজমানি তুলে দেন সিজেকেএস কাউন্সিলর চন্দন ধর। 

আজকের খেলা
আজ বিকাল ৩ টায় মাদারবাড়ী উদয়ন সংঘ এবং কাস্টমস এসসি পরস্পরের মোকাবেলা করবে।

ডিএস


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন