বুধবার, ৫ অক্টোবর ২০২২

ইউএস ওপেনের নতুন রাজা কার্লোস আলকারাজ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১২ সেপ্টেম্বর ২০২২, ১০:২২ পূর্বাহ্ন

ইউএস ওপেনের নতুন রাজা কার্লোস আলকারাজ

নরওয়ের রুদকে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন হন ১৯ বছর বয়সী আলকারাজ

নতুন যুগের টেনিসের ‘পোস্টার বয়’ ভাবা হয়েছিল তাঁকে। ভাবনাটা যে অমূলক নয়, কাল ইউএস ওপেন জিতে বুঝিয়ে দিলেন ১৯ বছর বয়সী কার্লোস আলকারাজ। ছেলেদের এককের ফাইনালে নরওয়ের ক্যাসপার রুদকে ৬–৪, ২–৬, ৭–৬ (৭–১), ৬–৩ গেমে হারিয়ে প্রথমবারের মতো গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপার দেখা পেলেন এই স্প্যানিশ তারকা। 

এর মধ্য দিয়ে সর্বকনিষ্ঠ পুরুষ খেলোয়াড় হিসেবে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষেও উঠলেন আলকারাজ। এটিপি র‌্যাঙ্কিংয়ের ৪৯ বছরের ইতিহাসে প্রথম ‘টিনএজ’ হিসেবে র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠার কীর্তি গড়লেন আলকারাজ।

২০০৫ ফ্রেঞ্চ ওপেন ১৯ বছর বয়সে জিতেছিলেন রাফায়েল নাদাল। এই স্প্যানিশ কিংবদন্তি আবার আলকারাজের আদর্শ। ১৭ বছর আগে নাদালের সেই কীর্তির পর সর্বকনিষ্ঠ খেলোয়াড় হিসেবে গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের নজির গড়লেন আলকারাজ। ইউএস ওপেনে এর আগে সর্বশেষ ১৯ বছর বয়সে শিরোপা জিততে দেখা গেছে পিট সাম্প্রাসকে। ১৯৯০ সালে ১৯ বছর বয়সে ইউএস ওপেন জেতেন সাম্প্রাস।

জয়ের পর আলকারাজ বলেছেন, ‘এই মুহূর্তটা উপভোগ করছি। হাতে শিরোপা নিয়ে ভালোই লাগছে। তবে আমি আরও শিরোপা জিততে চাই। অনেক অনেক সপ্তাহ শীর্ষে থাকতে চাই। আরও বেশি করে পরিশ্রম করতে হবে।’ 

ফাইনাল জয়ের পর আলকারাজের নামের পাশে লেখা হয়েছে আরও এক কীর্তি। গ্র্যান্ড স্লামের এক টুর্নামেন্টে সর্বোচ্চ সময় কোর্টে কাটানোর রেকর্ড গড়েছেন আলকারাজ। এবার ইউএস ওপেনে ২৩ ঘণ্টা ২১ মিনিট কোর্টে ছিলেন তিনি। এই পথে আলকারাজ ভেঙেছেন ২০১৮ সালে উইম্বলডনে কেভিন অ্যান্ডারসনের গড়া রেকর্ড।

আলকারাজ চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর তাঁকে শুভেচ্ছা জানাতে দেরি করেননি নাদাল। তাঁর টুইট, ‘র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে ওঠা এবং প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম জয়ের জন্য অভিনন্দন। আমি নিশ্চিত তুমি আরও অনেক শিরোপা জিতবে।’ 

মিয়ামি, মাদ্রিদ, রিও ও বার্সেলোনায় মাস্টার্স জয়ের পর এ বছর ইউএস ওপেন দিয়ে পঞ্চম ট্রফি জিতলেন আলকারাজ। মাদ্রিদ মাস্টার্সে কাদামাটির কোর্টে নাদাল ও নোভাক জোকোভিচকে হারিয়ে আলোচনায় উঠে এসেছিলেন তিনি। ফাইনাল জিতলে রুদও র‌্যাঙ্কিংয়ের শীর্ষে উঠতেন। ফ্রেঞ্চ ওপেন ফাইনালের পর এ বছর ইউএস ওপেন ফাইনালেও হারলেন রুদ।


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন