রবিবার, ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে প্রথম টেস্ট জয়ের হাতছানি টাইগারদের

ক্রীড়া প্রতিবেদক

০১ ডিসেম্বর ২০২৩, ০৫:০৪ অপরাহ্ন

নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ঘরের মাঠে প্রথম টেস্ট জয়ের হাতছানি টাইগারদের

বিশ্বকাপে চরম ব্যর্থতার পর বলের রঙের সাথে সাথে পরিবর্তন হয়ে গেছে বাংলাদেশের খেলাও। ঘরের মাঠে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে আগের ছয়বারের দেখায় কখনো জয়ের স্বাদ না পাওয়া টাইগাররা এখন টেস্ট জয়ের সুবাস পাচ্ছে।

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশীপের নতুন চক্রে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টের চতুর্থ দিনের শেষ বিকেলে চায়ের দেশ সিলেটে জয়ের সুবাস পাচ্ছে লাল-সবুজের বাহিনী।

ঘরের মাঠে কিউইদের প্রথমবার টেস্টে হারাতে বাংলাদেশের অপেক্ষা আর মাত্র ৩ উইকেটের। ৩৩২ রানের পাহাড়সম টার্গেট তাড়ায় স্কোরবোর্ডে ১১৩ রান তুলতেই ৭ উইকেট হারিয়ে ফেলেছে সফরকারীরা। সিলেট টেস্টের ভাগ্য বদলাতে এখনও ২১৯ রান করতে হবে নিউজিল্যান্ডকে। পরিস্থিতি বিবেচনায় যা অসম্ভবই বলা চলে।

নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংসের ব্যাটিং শেষে আজ কিউইদের সামনে ৩৩২ রানের পাহাড়সম টার্গেট ছুড়ে দেয় বাংলাদেশ। এর আগে এতবড় রান তাড়া করে জয়ের নজির নেই নিউজিল্যান্ডের। বড় লক্ষ্য তাড়ায় এদিন শুরুতেই হোঁচট খায় কিউইরা।

ইনিংসের প্রথম ওভারেই বাংলাদেশকে দারুণ শুরু এনে দেন শরিফুল ইসলাম। এই বাঁহাতি পেসারের খাটো লেন্থের বলে খোঁচা দিয়ে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন টম লাথাম। 

লাথাম ফেরার পর কনওয়েকে সঙ্গে নিয়ে ইনিংস মেরামতের চেষ্টায় ছিলেন কেইন উইলিয়ামসন। প্রথম ইনিংসের সেঞ্চুরিয়ান এ যাত্রায় ব্যর্থ হলেন। অভিজ্ঞ এই ব্যাটার তাইজুলের ঘূর্ণিতে দিশেহারা হয়েছেন! লেগ বিফোরের ফাঁদে পড়ার আগে ২৪ বলে করেছেন ১১ রান।

থিতু হওয়ার আগেই হেনরি নিকোলসকে বিদায় করেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ২ রান করে নিকোলস ফেরায় ৩০ রান তুলতেই টপ অর্ডারের তিন ব্যাটারকে হারিয়ে বিপাকে পড়ে নিউজিল্যান্ড।

এরপর মিচেলকে সঙ্গে নিয়ে জুটি গড়ার চেষ্টায় ছিলেন কনওয়ে। চা বিরতি থেকে ফিরেই এই জুটি ভেঙেছেন তাইজুল ইসলাম। এই বাঁহাতি স্পিনারের টার্ন করে বেরিয়ে যাওয়া বল ডিফেন্স করতে গিয়ে সিলি পয়েন্টে ক্যাচ দিয়েছেন কনওয়ে। 

প্রথম ইনিংসে চার উইকেট শিকার করা তাইজুল দ্বিতীয় ইনিংসেও হুল ফোটাচ্ছেন সিলেটে। কনওয়ের পর ড্রেসিংরুমে ফেরত পাঠালেন কিপার-ব্যাটার টম ব্লান্ডেলকে। 

তিনশ ছাড়ানো লক্ষ্য তাড়ায় চরম ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়েছে নিউজিল্যান্ড। স্কোরবোর্ডে একশ রান যোগ করতে তারা হারিয়ে ফেলেছে ৬টি উইকেট। এরপর সপ্তম উইকেট জুটিতে কিছুটা প্রতিরোধের চেষ্টা করেন ড্যারেল মিচেল ও কাইল জেমিসন। সেই তাইজুলেই ফিরতে হয় জেমিসনকে। ২৮ বলে ৭ রান করেন তিনি।


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন