সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২

হাসান মুরাদের ৮ উইকেট, সাব্বিরের ফিফটি—তবুও পিছিয়ে চট্টগ্রাম

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১২ অক্টোবর ২০২২, ১১:০৫ অপরাহ্ন

হাসান মুরাদের ৮ উইকেট, সাব্বিরের ফিফটি—তবুও পিছিয়ে চট্টগ্রাম

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে ক্যারিয়ার সেরা বোলিং করলেন হাসান মুরাদ। ব্যাট হাতে ফিফটির দেখা পেয়েছেন চট্টগ্রামের ওপেনার সাব্বির হোসেন

নিজেকে ছাড়িয়ে গেলেন হাসান মুরাদ। কক্সবাজারে জন্ম নেয়া বিকেএসপির এ ছাত্র এবার জাতীয় লিগে চট্টগ্রামের হয়ে প্রথম খেলায় নিজের সেরা বোলিংটাই করলেন। এর আগে ফাস্টক্লাস ক্রিকেটে এক ইনিংসে এ বাঁ-হাতি স্পিনারের সেরা স্পেল ছিল ৭৪ রানে ৬ উইকেট।

বুধবার (১২ অক্টোবর) জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে সিলেটের বিপক্ষে ৪০.৫ ওভার বল করে ৮ মেডেন সহ ১১৯ রানে একাই ৮ উইকেট শিকার করেছেন হাসান মুরাদ। আগের দিন মানে মঙ্গলবার দ্বিতীয় দিনই ৫ উইকেট দখল করেছিলেন ২১ বছর বয়সী এই তরুণ। আজ সিলেটের বাকি ৩ উইকেটও জমা পড়েছে তার ঝুলিতে।

তার স্পিন ঘূর্ণির মুখে দ্বিতীয় দিন শেষে ৭ উইকেটে ৩০৩ রান তোলা সিলেট আজ বাকি ৩ উইকেটে ৯ রান যোগ করে ৩১২ রানে থেমে গেছে।

প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৪১ রানে অলআউট হওয়া চট্টগ্রাম ১৭১ রানে পিছিয়ে থেকে দ্বিতীয়বারও তেমন সুবিধা করতে পারেনি। আজ তৃতীয় দিন শেষে ইরফান শুক্কুরের দল এখনো ২ রানে পিছিয়ে।

দ্বিতীয় ইনিংসে চট্টগ্রামের স্কোর ৪ উইকেটে ১৬৯। প্রথম ইনিংসে ৩১ রান করা তারকা ওপেনার তামিম ইকবাল এবারও সুবিধা করতে পারেননি। ফিরে গেছেন ২০ রানে। তবে অপর ওপেনার সাব্বির হোসাইন তুলে নিয়েছেন প্রথম ফিফটি। চট্টগ্রামকে ম্যাচে ফেরাতে কঠিন সংগ্রামে দুই তরুণ; অধিনায়ক ইরফান শুক্কুর (২০ ব্যাটিং) ও পারভেজ হোসেন ইমন (১৪ ব্যাটিং)।

চট্টগ্রাম প্রথম ইনিংস: ১৪১/১০, ৮০.১ ওভার ও দ্বিতীয় ইনিংস: ১৬৯/৪, ৮৩ ওভার (সাব্বির হোসেন ৫৫, তামিম ইকবাল ২০, পিানাক ঘোষ ১৫, সৈকত আলী ৩২, পারভেজ হোসেন ইমন ১৪ ব্যাটিং, ইরফান শুক্কুর ২০ ব্যাটিং; নাবিল সামাদ ৩/৫৩)।

সিলেট প্রথম ইনিংস: ৩১২/১০, ৯৯.৫ ওভার (ইমতিয়াজ হোসেন তান্না ১৯, তৌফিক খান ৬৮, অমিত হাসান ৭৯, জাকির হাসান ৮৭, আসাদুল্লাহ গালিব ১৭, আবু বাকের ১৩; হাসান মুরাদ ৮/১১৯)।


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন