শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

শৈল্পিক ফুটবলে লুসাইলে ব্রাজিলের উৎসব

রিচার্লিসনের জোড়া গোল

ক্রীড়া প্রতিবেদক

২৫ নভেম্বর ২০২২, ০৩:০৯ পূর্বাহ্ন

শৈল্পিক ফুটবলে লুসাইলে ব্রাজিলের উৎসব

ম্যাচের বয়স ঘণ্টার কাঁটা ছুঁতেই গোলের গেরো খুলে পাঁচবারের বিশ্বসেরা ব্রাজিল। তাও একবার নয়, দুবার! জয়সূচক দুটি গোলই করেছেন রিচার্লিসন।

দু গোল দেয়ার পর ব্রাজিল আক্রমণের ধার আরও বাড়িয়ে দেয়। বিশেষ করে বদলি হিসেবে রুদ্রিগো, মার্টেনেলি, অ্যান্থনি, ফ্রেড নামার পর সার্বিয়ার গোল রক্ষককে ব্যতব্যস্ত রাখে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড। বেশ কিছু দুর্দান্ত সেভ করে সার্বিয়ার গোল রক্ষক। মাঝখানে গোলপোস্টও ব্রাজিলকে গোল ব্যবধান বাড়াতে দেয়নি।

মিশন হেক্সার প্রথম ম্যাচেই নেইমার-রাফিনিয়ার সৃষ্টিশীলতা, ভিনিসিয়াসের গতিতে সেলেসাওরা প্রতি আক্রমণেই ত্রাস ছড়িয়েই নিরঙ্কুশ জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে ফেভারিট ব্রাজিল। 

এর আগে প্রথমার্ধে দারুণ সব আক্রমণ করেও গোলের দেখা পাননি নেইমাররের ব্রাজিল। চীনের প্রাচীরের মতো দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়ে ব্রাজিলের সব আক্রমণ সামলে দিয়েছে সার্বিয়ার রক্ষণভাগ। তাতে করে প্রথমার্ধটা শেষ হয় গোলশূন্যভাবেই।

প্রথমার্ধে ব্রাজিলের বলের দখল ছিল ৫৯ শতাংশ সময়ে, গোলে শট দুটো। তবে এই পরিসংখ্যান ঠিক ব্রাজিলের দাপটটা বুঝাতে পারছে না। নেইমার-রাফিনিয়ার সৃষ্টিশীলতা, ভিনিসিয়াসের গতিতে সেলেসাওরা প্রতি আক্রমণেই ত্রাস ছড়ায় বেশ।

ম্যাচের ১৩ মিনিটে ম্যাচের প্রথম কর্নার পায় ব্রাজিল। নেইমার সরাসরি গোলেই শট করে বসেছিলেন। সার্বিয়ার দীর্ঘদেহী গোলরক্ষক ভানজা মিলিঙ্কোভিচ-স্যাভিচ দারুণভাবে বলটা প্রতিহত করেন। এরপর ম্যাচের ২১ মিনিটে নেইমারের দুর্দান্ত শট ঠেকিয়ে দিতে কোন সমস্যাই হয়নি ভানজার। 

ব্রাজিলের আক্রমণের পাশাপাশি প্রতি আক্রমণে সার্বিয়াও ব্রাজিল দুর্গে খানিকটা ভয় ছড়াতে চেয়েছে। তবে সেসবকে গোলরক্ষক অ্যালিসন বেকার পর্যন্ত পৌঁছাতে দেয়নি থিয়াগো সিলভার নেতৃত্বাধীন ব্রাজিলের অভিজ্ঞ রক্ষণ বিভাগ।

ব্রাজিল প্রথম বড় সুযোগটা তৈরি করে ম্যাচের ২৮ মিনিটে। থিয়াগো সিলভার রক্ষণচেরা পাস বামপাশে অরক্ষিত ভিনিসিয়াসকে খুঁজে পায়, তবে গোললাইন থেকে ছুটে এসে সেটা ঠেকিয়ে দেন প্রথমার্ধের  সার্বিয়ার ত্রাতা ভানজা মিলিঙ্কোভিচ-স্যাভিচ।


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন