শনিবার, ৩ ডিসেম্বর ২০২২

নিজ ঘরেই পাকিস্তানের সামনে অচেনা বাংলাদেশ

নারী এশিয়া কাপ

দেশ স্পোর্টস ডেস্ক

০৩ অক্টোবর ২০২২, ১২:১১ অপরাহ্ন

নিজ ঘরেই পাকিস্তানের সামনে অচেনা বাংলাদেশ

থাইল্যান্ডকে উড়িয়ে এশিয়া কাপ শুরু হলেও পাকিস্তানের বিপক্ষে দেখতে হয়েছে মুদ্রার উল্টো পিঠ। ব্যাটিংয়ে ব্যর্থতার ছায়া পড়েছে বোলিংয়েও। টস হেরে সোমবার নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচের ব্যাটিং করতে নেমে ৮ উইকেটে ৭০ রান করে বাংলাদেশ। এই রান তাড়া করতে নেমে মাত্র ১ উইকেট হারিয়ে ১৩তম ওভারেই জিতে যায় পাকিস্তান। 

৭১ রানের লক্ষ্যে নেমে পাকিস্তান কোনও বাধার মুখে পড়েনি। পাওয়ার প্লের ৬ ওভারে কোনও উইকেট না হারিয়ে ৪০ রান করেছে। উদ্বোধনী জুটিতে মুনীবা আলী ও সিদ্রা আমিন সহজ জয়ের পথে দলকে এগিয়ে নিতে থাকেন। কিন্তু ৪৯ রানে তাদের জুটি ভেঙে দিয়েছেন সালমা খাতুন। মুনীবাকে ১৪ রানে পেছনে শামীমা সুলতানার ক্যাচ বানান তিনি। এরপর অধিনায়ক বিসমাহ মারুফ ও সিদ্রার ২৩ রানের অবিচ্ছিন্ন জুটিতে জয় তুলে নেয় পাকিস্তান। বিসমাহ ১২ ও সিদ্রা ৩৬ রানে অপরাজিত ছিলেন।

এর আগে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত বাংলাদেশের ব্যাটসম্যানরা ছিলেন অসহায়। বল কিছুটা নিচু হয়ে আসলেও এমন উইকেটের সঙ্গে তাদের দীর্ঘদিনের পরিচয়। শামীমা সুলতানা থেকে শুরু করে জ্যোতি কেউই আলো ছড়াতে পারেননি। বল না বুঝে, ক্রস ব্যাট চালিয়ে উইকেট ছুড়ে দিয়ে এসেছেন মেয়েরা।  

কন্ডিশনের সুবিধা আদায়ে যতটা না পাকিস্তানের বোলারদের কৃতিত্ব তার চেয়ে বেশি দায়ী বাংলাদেশি ব্যাটসম্যানরা। শুরুটা হয়েছিল বিপর্যয়ে। প্রথম ওভারে শেষ বলে বোল্ড হন আগের ম্যাচে ঝড়ো ব্যাটিং করা শামীমা। পরের ওভারে আবার বোল্ড ফারজানা হক। অলরাউন্ডার রুমানা এসেও হাল ধরতে পারেননি। এই তিন জনই ১ রানের বেশি করতে পারেননি। ৩ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে ধুঁকতে থাকে লাল সবুজের দল। 

পাওয়ার প্লে থেকে আসে ৩ উইকেটে ১২ রান। খেলা হাল ধরেন জ্যোতি-লতা মন্ডল। দুজনে সামাল দিলেও রানটা ঠিক আসছিল না। ইনিংসের পঞ্চম ওভারে আসে প্রথম বাউন্ডারি। লতা যখন ধীরে ধীরে খোলস ছাড়িয়ে বের হওয়ার চেষ্টায় ছিলেন তখনই এলবিডব্লিউ হয়ে ফেরেন সাজঘরে। ১৯ বলে ১২ রান করেন তিনি। এরপর জ্যোতির সঙ্গী হন সালমা। দুজনে খেলছিলেন, কিন্তু রান আসছিল না। তিনে নেমে ক্রিজ আঁকড়ে পড়ে থাকা জ্যোতিও বেশিদূর নিয়ে যেতে পারেননি দলকে। ৩০ বলে ১৭ রান করে ফেরেন তিনি। 

সালমা অপরাজিত ছিলেন ২৯ বলে ইনিংস সেরা ২৪ রান করে। রিতু মনি আউট হলে আসে বৃষ্টি। প্রায় আধঘণ্টা পর খেলা শুরু হতে ১৯তম ওভারে নাহিদা আক্তার রান আউট হন। 

পাকিস্তানের হয়ে ২টি করে উইকেট নেন ডায়না বেগ ও নিদা দার। ১টি করে উইকেট নেন সাদিয়া ইকবাল ও ওমানিয়া সোহেলির। 


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন