মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪

মালয়েশিয়ার সাথে হারতে হারতে জিতে সেমিতে বাংলাদেশ

এশিয়ান গেমস ক্রিকেট

ক্রীড়া প্রতিবেদক

০৪ অক্টোবর ২০২৩, ০৩:৪৪ অপরাহ্ন

মালয়েশিয়ার সাথে হারতে হারতে জিতে সেমিতে বাংলাদেশ

তারকা সমৃদ্ধ বাংলাদেশের প্রতিপক্ষ ছিল ‘দূর্বল’ মালয়েশিয়া। এই দলটির সঙ্গেও শ্বাসরুদ্ধকর লড়াই করতে হলো বাংলাদেশ দলকে। এশিয়ান গেমস ক্রিকেটের কোয়ার্টার ফাইনালে মাত্র ১১৬ রান করে পরাজয়ের মুখেই পড়ে গিয়েছিলো বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। তবে শেষ মুহূর্তে সাইফ হাসান, রিশাদ হোসেন এবং আফিফ হোসেন ধ্রুবর দুর্দান্ত বোলিংয়ের ওপর ভর করে বাংলাদেশ মাত্র ২ রানে হারিয়েছে মালয়েশিয়কে। সে সঙ্গে সেমিফাইনালেও নাম লিখে নিলো সাইফ হাসানের দল।

অনেকটা নাটকীয়ভাবে মালয়েশিয়াকে ২ রানে হারিয়ে গেমস ক্রিকেটের সেমিফাইনালে উঠলো বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। জয়ের জন্য মাত্র ১১৭ রনের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে মালয়েশিয়ান ব্যাটার ভিরানদিপ সিংয়ের ব্যাটে নিশ্চিত জয়ের পথে চলে গিয়েছিলো মালয়েশিয়া। ভিরানদিপ সিং করেছিলেন ৩৯ বলে ৫২ রান। শেষ ওভারে তাকে আউট করে দেন আফিফ হোসেন। তার আউটের পরই মূলত বাংলাদেশের জয় নিশ্চিত হয়।

বুধবার (৪ অক্টোবর) চীনের হাংজুতে বাংলাদেশ প্রথমে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১১৬ রান করে। জবাবে মালয়েশিয়া ২০ ওভারে ৮ উইকেটে করে ১১৪ রান।

৩৮ রানে ৪ উইকেট ফেলে দেয়ার পর অনেকেই ভেবেছিলো, স্কোর ছোট হলেও জয়টা পেতে যাচ্ছে বাংলাদেশই। কিন্তু ভিরানদিপ সিং বিজয় উন্নিকে সঙ্গে নিয়ে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেন। ৭২ রান পর্যন্ত টেনে নিয়ে যান তারা দু’জন। ৫ এবং ৬ নম্বর উইকেট পড়ে যায় এ সময়। এরপর আইনুল হাফিজকে সঙ্গে নিয়ে আবারও জ্বলে ওঠেন ভিরানদিপ সিং। ১১২ রান পর্যন্ত নিয়ে যান তার। ১৯ এবং ২০ তম ওভারে গিয়ে রিশাধ হোসেন এবং আফিফ হোসেন সেট দুই ব্যাটারকে তুলে নিলে জয় নিশ্চিত হয় বাংলাদেশের।

শেষ ওভারে মালয়েশিয়ার দরকার ছিল মাত্র ৬ রান। অধিনায়ক সাইফ হাসান বল তুলে দেন আফিফ হোসেনের হাতে। দুর্দান্ত বোলিং করে আফিফ শেষ ওভারে মাত্র ৪ রান দিয়ে একটি উইকেট নিয়েছেন। মোট ৪ ওভার বল করে ১১ রান নিয়ে ৩ উইকেট নিয়ে দলের জয়ে বড় ভূমিকা রাখেন আফিফ।

এ জয়ে বাংলাদেশ টিকে রইলো গেমস পদক ধরে রাখার লড়াইয়ে। সেমিফাইনালে বাংলাদেশ মুখোমুখি হবে ভারতের। আগামী ৬ অক্টোবর ভারতকে হারিয়ে ফাইনালে উঠলে রৌপ্য পদক নিশ্চিত হবে। হারলে লড়তে হবে ব্রোঞ্জ পদকের জন্য।


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন