সোমবার, ৫ ডিসেম্বর ২০২২

প্রথম ইনিংসে ১৪১ রানে থেমে গেল তামিম ইকবালের চট্টগ্রাম

জাতীয় ক্রিকেট লিগ

ক্রীড়া প্রতিবেদক

১০ অক্টোবর ২০২২, ০৫:২২ অপরাহ্ন

প্রথম ইনিংসে ১৪১ রানে থেমে গেল তামিম ইকবালের চট্টগ্রাম

একসাথে দেশের চারটি ভেন্যুতে মাঠে গড়াল ২৪তম জাতীয় ক্রিকেট লিগের আসর। কিন্তু প্রথম দিনেই রাজশাহীর শহীদ কামরুজ্জামান স্টেডিয়াম ছাড়া বাকি ভেন্যুগুলোতে প্রথম দিনে রানের দেখা মিলেনি। ব্যতিক্রম হয়নি বন্দরনগরী চট্টগ্রামের সাগড়পাড়ের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামেও। সিলেটের বিপক্ষে চট্টগ্রাম প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়ে যায় মাত্র ১৪১ রানে। ওয়ানডে দলের অধিনায়ক চট্টগ্রামের তারকা খেলোয়াড় তামিম ইকবালের ৩১ রানই দলের হয়ে সর্বোচ্চ। 

টসে হেরে চট্টগ্রামের সম্ভাবনাময়ী ব্যাটসম্যান সাব্বির হোসেনকে নিয়ে চট্টগ্রামের ইনিংসের শুরু করেন তামিম ইকবাল। এ দুজন ১৬.৩ ওভার পর্যন্ত অবিচ্ছিন্ন থেকে দলকে এনে দেন ৪২ রানের উদ্বোধনী জুটি। এরপর চট্টগ্রামের হয়ে বলার মতো আর কোন জুটি গড়ে উঠেনি। তামিম ইকবাল (৬৯ বলে ৩১ রান), সাব্বির (৫০ বলে ১৬ রান), পারভেজ হোসেন ইমন (৫৯ বলে ১৫ রান), হাসান মুরাদ (৬০ বলে ১৪ রান), পিনাক ও মিশু যথাক্রমে ৭০ বল ও ৫১ বলে ১১ রান করে এবং সৈকত আলী ১০ রান করতে খেলেন ৫৬ রান।

সিলেটের পক্ষে নাবিল সামাদ ২৭.১ ওভার বল করে ৪৭ রান দিয়ে নেন ৫ উইকেট। এছাড়া নাঈম আহমেদের ঝুলিতে ঢুকে ৩ উইকেট।   

জবাবে দিনের খেলা শেষে সিলেটের সংগ্রহ কোন উইকেট না হারিয়ে ১৫ রান। 

এর আগে সকালে চট্টগ্রাম ভেন্যুর খেলা উদ্বোধন করেন ভেন্যু চেয়ারম্যান ও বিসিবি সহসভাপতি আ জ ম নাছির উদ্দিন। এ সময় অতিথি হিসেব উপস্থিত ছিলেন চট্টগ্রাম বিভাগীয় ক্রীড়া সংস্থার সহসভাপতি আলী আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সিরাজউদ্দীন মো. আলমগীর ও ম্যাচ রেফারি আখতার উদ্দিন শিপার।

এদিকে, মিরপুরের শেরেবাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে রংপুরের দৌড় থেমে যায় মাত্র ৯২ রানে। রংপুরের হয়ে আরিফুল হক (৮৩ বলে ৩৪* রান) ছাড়া আর কেউ বলার মতো রানের দেখা পাননি। ঢাকার পেসার সুমন খান নেন ৫ উইকেট। জবাবে ঢাকা ৫ উইকেট হারিয়ে ১২২ রান করে দিনের খেলা শেষ করে। তাইবুর রহমান  ও নাদিফ চৌধুরী উভয়ই ৩০ রান করে অপরাজিত আছেন।

খুলনায় ঢাকা মেট্রোর বিপক্ষে খুলনা প্রথম ইনিংসে অলআউট হয়ে যায় ১৩১ রানে।  দলের পক্ষে নাহিদুল সর্বোচ্চ ৪২ রান করেন। ঢাকা মেট্রোর মানিক খান নেন ৪ উইকেট। জবাবে ৩৭ রান তুলতেই ৩ উইকেট হারিয়ে ফেলে ঢাকা। শামসুর রহমান শুভ অপরাজিত আছেন ২০ রানে। 

রাজশাহীতে স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৯ উইকেট হারিয়ে ২৬৯ রান করে দিনের খেলা শেষ করে বরিশাল। দলের হয়ে সোহাগ গাজী (৫৬ রান) ও আবু সায়েম (৫৯ রান) ফিফটির দেখা পান। তানভির ইসলাম অপারাজিত আছেন ৪৩ রানে। রাজশাহীর নাহিদ রানা নেন ৪ উইকেট।

ডিএস


সর্বশেষ

উপরে নিয়ে চলুন